সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১

শিরোনাম

শাশুড়ির মামলায় সাড়ে ৩ মাস পর পুত্রবধূর লাশ উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক    |    ১১:৫৭ এএম, ২০২১-০৭-২৬

শাশুড়ির মামলায় সাড়ে ৩ মাস পর পুত্রবধূর লাশ উত্তোলন

সুধারামে (সদর) শাশুড়ির দায়ের করা হত্যা মামলায় দাফনের সাড়ে তিন মাস পর নিহত পুত্রবধূ মারজাহান বেগমের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

রোববার (২৫ জুলাই) দুপুরে উপজেলার উত্তর শুল্লুকিয়া গ্রামের জগবন্ধুর বাড়ির পারিবারিক কবরস্থান থেকে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি তোলা হয়। গত ৩ এপ্রিল মারজাহান বেগম মারা যান।

মরদেহ উত্তোলনের সময় নোয়াখালী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তারিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সুধারাম মডেল থানার পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তারিকুল ইসলাম জানান, আদালতের নির্দেশে সাড়ে তিন মাস পর গৃহবধূ মারজাহান বেগমের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সুধারাম মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নুরনবী জানান, সৎ ছেলে মো. সোহাগের স্ত্রী মারজাহান বেগমকে হত্যার অভিযোগে গত ১৬ জুন নোয়াখালীর আমলি আদালতে স্বামী আবদুল খালেক, সৎ ছেলে মো. সোহাগ ও রাজু এবং সৎ মেয়ের স্বামী জামাল উদ্দিনকে আসামি করে মামলা করেন নিহতের শাশুড়ি রহিমা বেগম। পরে ৬ জুলাই সৎ ছেলে সোহাগকে (৩০) গ্রেফতার করে পুলিশ।

রহিমা বেগমের দাবি, হত্যার বিষয়টি জানতে পেরে প্রতিবাদ করায় তাকে দুই মাসের বেশি সময় ঘরে আটকে রাখেন আসামিরা। পরে কৌশলে স্বামীর বাড়ি থেকে বের হয়ে আদালতে মামলাটি করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, স্বামী, দুই সৎ ছেলে এবং পুত্রবধূ মারজাহান ও তার তিন শিশু সন্তান নিয়ে সদর উপজেলার উত্তর শুল্লুকিয়া গ্রামের রহিমা বেগমের সংসার। হত্যার কয়েক মাস আগে সোহাগের পরকীয়ার সম্পর্ক নিয়ে স্ত্রী মারজাহানের সঙ্গে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এ নিয়ে মারজাহানকে প্রায়ই শারীরিক নির্যাতনসহ মেরে ফেলার হুমকি দিতেন সোহাগ।

গত ৩ এপ্রিল দুপুরে পুত্রবধূ মারজাহানকে বাড়িতে রেখে বাবার বাড়ি যান রহিমা। মারজাহান বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন বলে রাত ২টায় মোবাইল ফোনে জানান স্বামী আবদুল খালেক। পরদিন সকালে বাড়িতে ফিরে তিনি জানতে পারেন সোহাগের পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় আসামিরা মারজাহানকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

রিটেলেড নিউজ

সেনবাগে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পেলেন যারা

সেনবাগে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পেলেন যারা

সেনবাগ প্রতিনিধি : আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনকে সামনে রেখে নোয়াখালীর সেনবাগ পৌরসভাসহ ৬ টি ইউনিয়নে...বিস্তারিত


৩য় বর্ষপূর্তি উদযাপন করল সেনবাগের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘একতা শান্তি সংঘ’

৩য় বর্ষপূর্তি উদযাপন করল সেনবাগের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘একতা শান্তি সংঘ’

সেনবাগ প্রতিনিধি : ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং, ডায়বেটিস পরীক্ষা, কোভিড ১৯ টিকা রেজিষ্ট্রেশনসহ, নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সেন...বিস্তারিত


কোম্পানীগঞ্জে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

কোম্পানীগঞ্জে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোম্পানীগঞ্জে নুসরাত জাহান (১৯) নামে এক কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহত...বিস্তারিত


রোগ নিয়ন্ত্রণে ডাবের পানি

রোগ নিয়ন্ত্রণে ডাবের পানি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডাবের পানির উপকারিতা সকলেই জানে। আমাদের শরীরকে যেমন ডাবের পানি অনেক রোগব্যাধি থেকে মুক্ত রাখে , তে...বিস্তারিত


হাতিয়ায় উদ্ধারের পর আবারো স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গেলেন প্রেমিক

হাতিয়ায় উদ্ধারের পর আবারো স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গেলেন প্রেমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রেমিকার সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার ১২ দিন পর স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয় পুলিশ।...বিস্তারিত


প্রবাসে সড়ক দুর্ঘটনায় চাটখিলের যুবকের মৃত্যু

প্রবাসে সড়ক দুর্ঘটনায় চাটখিলের যুবকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক : দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়েস্টার্ন ক্যাপের উমঝুমখোলো শহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবলু কাদের (৩৮) নামে এক বাংলাদে...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

বেগমগঞ্জে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ২

বেগমগঞ্জে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পু...বিস্তারিত


নোবিপ্রবিতে শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা 

নোবিপ্রবিতে শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা 

এস আহমেদ ফাহিম : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর