মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১

শিরোনাম

নোয়াখালীতে কামারশিল্পে দুর্দিন, পেশা পরিবর্তন করছেন অনেকেই

নিজস্ব প্রতিবেদক    |    ০৩:৩০ পিএম, ২০২১-০৭-১৯

নোয়াখালীতে কামারশিল্পে দুর্দিন, পেশা পরিবর্তন করছেন অনেকেই

কাঁচা লোহা, উৎপাদনের উপকরণের মূল্যবৃদ্ধি, উৎপাদিত পণ্যের মূল্য হ্রাস, ইস্পাতনির্মিত মেশিনে তৈরি জিনিসপত্রের সঙ্গে অসম প্রতিযোগিতা ও অর্থাভাবসহ নানা প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দুর্দিন পার করছেন নোয়াখালীর কামারশিল্পের সঙ্গে জড়িতরা। এতে করে একের পর এক বন্ধ হয়ে যাচ্ছে কামারশালা। ফলে পৈত্রিক পেশায় নিয়োজিত কামাররা পড়েছেন চরম বিপাকে। এতে বাধ্য হয়ে অনেকে পেশাই ছেড়ে দিচ্ছেন। আবার যারা আঁকড়ে ধরে আছেন তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

রোববার (১৮ জুলাই) বিকেলে কথা হয় নোয়াখালীর দত্তবাড়ির মোড়ের ষাটোর্ধ্ব উত্তম কর্মকারের সঙ্গে। পড়ন্ত বিকেলে চোখে-মুখে ক্লান্তির চাপ বয়সের ভারে ন্যুব্জ উত্তমের। এক হাতে হাফরের চেইন টানছেন অন্য হাতে হাতুড়ি দিয়ে কাঁচা লোহা পিটিয়ে তৈরি করছেন দা, ছুরি, চাপাতি, বটি, ধামাসহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতি।

কাজের ফাঁকে উত্তম কর্মকার জানান, পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া এ পেশায় কাজ করছেন বিগত ৪০ বছর যাবৎ। এত বছর দোকানের আয়ে ভালই চলছিল সংসার। বিশেষ করে প্রতিবছর ঈদুল আজহার সময় চরম ব্যস্ততায় দিন কাটতো তাদের। করোনার প্রভাবে গত বছর থেকে খুব খারাপ সময় যাচ্ছে। চরম আর্থিক অনটনে ভুগছেন এ পেশায় জড়িত প্রায় প্রতিটি ব্যক্তি।

জানা গেছে, জেলায় প্রায় তিন শতাধিক কামার রয়েছে। এবার নোয়াখালীতে প্রায় এক মাস লকডাউন থাকায় চরম বিপাকে পড়েছেন তারা। আগের মতো নেই কর্মব্যস্ততা। অভাব অনটনে কাটছে তাদের দিনকাল। অথচ দুই বছর আগে এসময় কামারপাড়ায় জমজমাট দা, ছুরি, বটি বিক্রি ও সান দেয়ার ধুম ছিল।

একই রকম অভিযোগ মাইজদী বাজারের রতন কর্মকারের। তিনি বলেন, ‘প্রায় ৩০ বছর যাবৎ এ পেশায় থাকলেও এ রকম পরিস্থিতিতে পড়তে হয়নি কখনো। গত বছর থেকে আয়-রোজগার নেই বললেই চলে। কাজের চাপও তেমন একটা নেই।’

রতন আরও বলেন, ‘পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে মানুষের মধ্যে তেমন কর্মব্যস্ততা দেখা যাচ্ছে না। করোনা সংক্রমণের পূর্বে ঈদের আগের দিনগুলোতে যে আয় হতো সেগুলো নিয়ে বছর পার করে দেয়া যেতো। আর এখন তার এক তৃতীয়াংশও আয় হচ্ছে না।’

পার্শ্ববর্তী কর্মকার সুনিল বলেন, ‘আমরা যারা পৈত্রিক পেশাকে আঁকড়ে ধরে আছি, সবাই খুব কষ্টে আছি। বিভিন্ন স্থান থেকে কয়লা সংগ্রহ করে সকাল থেকেই কাজ শুরু হয়, চলে রাত অবধি। শারীরিক ও কায়িক পরিশ্রম করে লোহার যে সমস্ত জিনিস তৈরি করি তা বিভিন্ন হাট-বাজারে বিক্রি করে লাভ হয় খুব সামান্য। এতে পরিবার-পরিজন নিয়ে বেঁচে থাকা খুবই কষ্টকর।’

তবে ভিন্ন রকম অভিযোগ দত্তেরহাটের কর্মকার উজ্জ্বল দাশের। তিনি বলেন, ‘নোয়াখালীর প্রধান শহর মাইজদী ও তার আশপাশে ২০ থেকে ২৫টি কামারের দোকান রয়েছে। শহরের রাস্তায় ফোর লেনের কাজ শুরু হওয়ায় অধিকাংশ দোকানঘর ভেঙে ফেলা হয়েছে। নতুন করে কোথাও ঘরও ভাড়া পাচ্ছি না। ফলে রাস্তার ধারে তাবু টাঙিয়েই কাজ করতে হচ্ছে।’

আক্ষেপের সুরে মাইজদী বাজারের কর্মকার স্বপন বলেন, ‘এই আদি শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে এবং আমাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে বেঁচে থাকার জন্য সহজ শর্তে ঋণ নিতে সরকারের সহযোগিতা চাই। তাহলেই পরিবার-পরিজন নিয়ে আমরা বেঁচে থাকতে পারবো।’

-জাগো নিউজ

রিটেলেড নিউজ

যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে কোম্পানীগঞ্জ ছেড়েছেন কাদের মির্জা

যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে কোম্পানীগঞ্জ ছেড়েছেন কাদের মির্জা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে কোম্পানীগঞ্জ থেকে ঢাকার পথে রওনা দিয়েছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদ...বিস্তারিত


শাশুড়ির মামলায় সাড়ে ৩ মাস পর পুত্রবধূর লাশ উত্তোলন

শাশুড়ির মামলায় সাড়ে ৩ মাস পর পুত্রবধূর লাশ উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সুধারামে (সদর) শাশুড়ির দায়ের করা হত্যা মামলায় দাফনের সাড়ে তিন মাস পর নিহত পুত্রবধূ মারজাহান বেগমের...বিস্তারিত


মাইজদীতে শেরওয়ানি-পাগড়ি নিয়ে হাসপাতালে যাচ্ছিলেন তারা

মাইজদীতে শেরওয়ানি-পাগড়ি নিয়ে হাসপাতালে যাচ্ছিলেন তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক : সকাল থেকে মাইজদী শহরে চেকপোস্ট বসিয়ে তৎপর জেলা প্রশাসন। বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হলেই মুখোমুখি হত...বিস্তারিত


জোয়ারের পানিতে হাতিয়ার ২০ গ্রাম প্লাবিত

জোয়ারের পানিতে হাতিয়ার ২০ গ্রাম প্লাবিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় টানা বর্ষণ ও জোয়ারে পানিতে বেড়িবাঁধের বাইরের ১১ ইউনিয়ন...বিস্তারিত


 সেনবাগে ভ্র্যাম্যমান আদালতের অভিযান, ৭ হাজার ৮ শত টাকা জরিমানা আদায়

সেনবাগে ভ্র্যাম্যমান আদালতের অভিযান, ৭ হাজার ৮ শত টাকা জরিমানা আদায়

সেনবাগ প্রতিনিধি :  কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিন নোয়াখালীর সেনবাগে কঠোর অবস্থানে সেনবাগ উপজেলা প্রশাসনের দুই নির্বা...বিস্তারিত


সুবর্ণচরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে বেঁধে নির্যাতন

সুবর্ণচরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে বেঁধে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক :  সুবর্ণচরে যৌতুকের দাবিতে আনোয়ারা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পা...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

বেগমগঞ্জে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ২

বেগমগঞ্জে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পু...বিস্তারিত


সুবর্ণচরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, অপমানে  আত্মহত্যা

সুবর্ণচরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, অপমানে  আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার হয়ে অপমানে  আত্মহত্যা করেছে এক স্কুলছাত্রী। মঙ্গলবার (২ মার্...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর